MCQ practice | Free learning platform

Categories

Posted on 12 Mar, 2022 09:42 am, category: Islam | Education | Al-Hadis |

সূরা আল-ফাতিহা - ফজিলত ও বৈশিষ্ট্য

সূরা আল-ফাতিহা

ফজিলত ও বৈশিষ্ট্য: 

সুরা আল-ফাতিহা কোরআনের একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ সূরা। প্রথমতঃ এ সূরা দ্বারাই পবিত্র কোরআন আরম্ভ হয়েছে এবং এ সূরা দিয়েই সর্বশ্রেষ্ঠ এবাদত নামায আরম্ভ হয়। অবতরণের দিক দিয়েও পূর্ণাঙ্গ সূরারূপে এটিই প্রথম নাযিল হয়। সূরা ‘ইকরা’, ‘মুযযাম্মিল’ ও সুরা ‘মুদ্দাসসিরে’র ক’ টি আয়াত অবশ্য সুরা আল-ফাতিহার পূর্বে অবতীর্ণ হয়েছে। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ সুরারূপে এ সুরার অবতরণই সর্বপ্রথম। যে সকল সাহাবী (রাঃ) সূরা আল-ফাতিহা সর্বপ্রথম নাযিল হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন, তাঁদের সে বক্তব্যের অর্থ বােধহয় এই যে, পরিপূর্ণ সূরারূপে এর আগে আর কোন সূরা নাযিল হয়নি। এ জন্যই এ সূরার নাম ‘ফাতিহাতুল-কিতাব’ বা কোরআনের উপক্রমণিকা রাখা হয়েছে। 

‘সূরা-ফাতিহা‘ এদিক দিয়ে সমগ্র কোরআনের সার-সংক্ষেপ। এ সূরায় সমগ্র কোরআনের সারমর্ম সংক্ষিপ্তাকারে বলে দেয়া হয়েছে। কোরাআনের অবশিষ্ট সুরাগুলাে প্রকারান্তরে সূরা ফাতিহারই বিস্তৃত ব্যাখ্যা। কারণ, সমগ্র কোরআন প্রধানতঃ ঈমান এবং নেক আমলের আলােচনাতেই কেন্দ্রীভূত। আর এ দু’টি মূলনীতিই এ সূরায় সংক্ষিপ্তাকারে বর্ণনা করা হয়েছে। তফসীরে রূহুল মা‘আনী ও রূহুল বয়ানে এর বিস্তারিত আলােচনা রয়েছে। তাই এ সূরাকে সহীহ হাদীসে ‘উম্মুল কোরআন’, ‘উম্মুল কিতাব’, ‘কোরানে আযীম’ বলেও অভিহিত করা হয়েছে।- (কুরতুবী) |

অথবা এ জন্য যে, যে ব্যক্তি কোরআন তেলাওয়াত বা অধ্যয়ন করবে তার জন্য এ মর্মে বিশেষ নির্দেশ দেয়া হয়েছে যে, সে যেন প্রথমে পূর্বঘােষিত যাবতীয় ধ্যান-ধারণা অন্তর থেকে দূরীভূত করে একমাত্র সত্য ও সঠিক পথের সন্ধানের উদ্দেশে এ কিতাব তেলাওয়াত আরম্ভ করে এবং আল্লাহর নিকট এ প্রার্থনাও করে যে, তিনি যেন তাকে সিরাতুল মুস্তাকীমের হেদায়েত দান করেন।

 হযরত রসূলে করীম (সাঃ) এরশাদ করেছেন যে- যার হাতে আমার জীবন-মরণ, আমি তাঁর শপথ করে বলছি, সূরা আল-ফাতিহার দৃষ্টান্ত তওরাত, ইনজীল, যাবুর প্রভৃতি অন্য কোন আসমানী কিতাবে তাে নেই-ই, এমনকি পবিত্র কোরআনেও এর দ্বিতীয় নেই। ইমাম তিরমিযী আবু হােরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণনা করেছেন যে, হুযুর সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম আরাে বলেছেন যে— সূরায়ে ফাতিহা প্রত্যেক রােগের ঔষধবিশেষ।

হাদীস শরীফে সূরা আল-ফাতিহাকে সুরায়ে শেফাও বলা হয়েছে। –(কুরতুবী)।

বােখারী শরীফে হযরত আনাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত আছে যে, রসূল (সাঃ) এরশাদ করেছেন, – সমগ্র কোরআনে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ সূরা হচ্ছে  – (কুরতুবী)

 

Reference Book:

 


Copy Link to Share:
https://www.mcqpractice.com/auth/index.php?page=../proverbs/article-details.php&id=78&t=সূরা-আল-ফাতিহা----ফজিলত-ও-বৈশিষ্ট্য

Posted on 12 Mar, 2022 09:42 am, Category:

সূরা আল-ফাতিহা - ফজিলত ও বৈশিষ্ট্য

সূরা আল-ফাতিহা

ফজিলত ও বৈশিষ্ট্য: 

সুরা আল-ফাতিহা কোরআনের একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ সূরা। প্রথমতঃ এ সূরা দ্বারাই পবিত্র কোরআন আরম্ভ হয়েছে এবং এ সূরা দিয়েই সর্বশ্রেষ্ঠ এবাদত নামায আরম্ভ হয়। অবতরণের দিক দিয়েও পূর্ণাঙ্গ সূরারূপে এটিই প্রথম নাযিল হয়। সূরা ‘ইকরা’, ‘মুযযাম্মিল’ ও সুরা ‘মুদ্দাসসিরে’র ক’ টি আয়াত অবশ্য সুরা আল-ফাতিহার পূর্বে অবতীর্ণ হয়েছে। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ সুরারূপে এ সুরার অবতরণই সর্বপ্রথম। যে সকল সাহাবী (রাঃ) সূরা আল-ফাতিহা সর্বপ্রথম নাযিল হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন, তাঁদের সে বক্তব্যের অর্থ বােধহয় এই যে, পরিপূর্ণ সূরারূপে এর আগে আর কোন সূরা নাযিল হয়নি। এ জন্যই এ সূরার নাম ‘ফাতিহাতুল-কিতাব’ বা কোরআনের উপক্রমণিকা রাখা হয়েছে। 

‘সূরা-ফাতিহা‘ এদিক দিয়ে সমগ্র কোরআনের সার-সংক্ষেপ। এ সূরায় সমগ্র কোরআনের সারমর্ম সংক্ষিপ্তাকারে বলে দেয়া হয়েছে। কোরাআনের অবশিষ্ট সুরাগুলাে প্রকারান্তরে সূরা ফাতিহারই বিস্তৃত ব্যাখ্যা। কারণ, সমগ্র কোরআন প্রধানতঃ ঈমান এবং নেক আমলের আলােচনাতেই কেন্দ্রীভূত। আর এ দু’টি মূলনীতিই এ সূরায় সংক্ষিপ্তাকারে বর্ণনা করা হয়েছে। তফসীরে রূহুল মা‘আনী ও রূহুল বয়ানে এর বিস্তারিত আলােচনা রয়েছে। তাই এ সূরাকে সহীহ হাদীসে ‘উম্মুল কোরআন’, ‘উম্মুল কিতাব’, ‘কোরানে আযীম’ বলেও অভিহিত করা হয়েছে।- (কুরতুবী) |

অথবা এ জন্য যে, যে ব্যক্তি কোরআন তেলাওয়াত বা অধ্যয়ন করবে তার জন্য এ মর্মে বিশেষ নির্দেশ দেয়া হয়েছে যে, সে যেন প্রথমে পূর্বঘােষিত যাবতীয় ধ্যান-ধারণা অন্তর থেকে দূরীভূত করে একমাত্র সত্য ও সঠিক পথের সন্ধানের উদ্দেশে এ কিতাব তেলাওয়াত আরম্ভ করে এবং আল্লাহর নিকট এ প্রার্থনাও করে যে, তিনি যেন তাকে সিরাতুল মুস্তাকীমের হেদায়েত দান করেন।

 হযরত রসূলে করীম (সাঃ) এরশাদ করেছেন যে- যার হাতে আমার জীবন-মরণ, আমি তাঁর শপথ করে বলছি, সূরা আল-ফাতিহার দৃষ্টান্ত তওরাত, ইনজীল, যাবুর প্রভৃতি অন্য কোন আসমানী কিতাবে তাে নেই-ই, এমনকি পবিত্র কোরআনেও এর দ্বিতীয় নেই। ইমাম তিরমিযী আবু হােরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণনা করেছেন যে, হুযুর সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম আরাে বলেছেন যে— সূরায়ে ফাতিহা প্রত্যেক রােগের ঔষধবিশেষ।

হাদীস শরীফে সূরা আল-ফাতিহাকে সুরায়ে শেফাও বলা হয়েছে। –(কুরতুবী)।

বােখারী শরীফে হযরত আনাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত আছে যে, রসূল (সাঃ) এরশাদ করেছেন, – সমগ্র কোরআনে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ সূরা হচ্ছে  – (কুরতুবী)

 

Reference Book:

 


More articles you may like







© 2018-2022 Condition of Use   Privacy Notice  
        FAQ | Help | Contact